শ্বাসকষ্টের রোগীরা কি ব্যায়াম করতে পারবেন?



যাঁদের হাঁপানি বা শ্বাসকষ্ট আছে, তাঁরা কি ব্যায়াম বা কোনো ধরনের শরীরচর্চা করতে পারবেন? নাকি এ ধরনের শারীরিক পরিশ্রম করলে তাঁদের শ্বাসকষ্ট বেড়ে যাবে? এ প্রশ্ন অনেকেরই আছে। আসুন জেনে নিই এ সম্পর্কে কিছু কথা—
* হাঁপানির রোগীদের ব্যায়াম করতে নিষেধ নেই। হালকা জগিং, হাঁটার মতো ব্যায়াম তাঁরা অবশ্যই করতে পারবেন। তবে তার সীমা জানতে হবে। যে পর্যায়ে ব্যায়ামের পর আপনি আর কুলোতে পারেন না, তার আগেই থামবেন।
*অনেক সময় হৃদ্রোগের কারণেও শ্বাসকষ্ট হয়। সে ক্ষেত্রে ব্যায়াম করার আগে চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়াই ভালো।
* মনে রাখবেন, হঠাৎ বেড়ে যাওয়া হাঁপানি বা সিভিয়ার অ্যাকিউট অ্যাজমার সময় ব্যায়াম করা যাবে না।
*যাঁদের হাঁপানি আছে, তাঁরা ব্যায়াম করতে যাওয়ার আগে দুই পাফ সালবিউটামল ও ইপরাট্রোমিয়াম-সমৃদ্ধ ইনহেলার টেনে নিলে সবচেয়ে ভালো হয়। এটা শ্বাসনালি প্রসারক হিসেবে কাজ করে। এতে পরবর্তী দুই থেকে চার ঘণ্টা শ্বাসকষ্ট থেকে মুক্ত থাকা যায়।
হঠাৎ বেড়ে যাওয়া হাঁপানি বা সিভিয়ার অ্যাকিউট অ্যাজমার সময় ব্যায়াম করা যাবে না
ডা. মো. আজিজুর রহমান
বক্ষব্যাধি বিশেষজ্ঞ, ঢাকা সেন্ট্রাল ইন্টারন্যাশনাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল
Share on Google Plus

About Sadia Afroza

    Blogger Comment
    Facebook Comment

0 comments:

Post a Comment